সরাসরি প্রধান সামগ্রীতে চলে যান

৫টি বেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস শেয়ার্ড হোস্টিং আপনার বাজেটের মধ্যে। [Cheap Sheard Hosting In Bangla]

 

৫টি বেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস শেয়ার্ড হোস্টিং আপনার বাজেটের মধ্যে। [Cheap Sheard Hosting In Bangla]
  বেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস শেয়ার্ড হোস্টিং    


৫টি বেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস শেয়ার্ড হোস্টিং আপনার বাজেটের মধ্যে। [Cheap Sheard Hosting In Bangla] ওয়েব হোস্টিং যেটা নেবার সময় আমরা একবারও কর্ণ পত্ করিনা কিন্তু যখন নেবার পর সমস্যা দেখাদেয় আমরা কমপ্লেইন করতে থাকি এটা নেয়া উচিত হয়নি।


কিছু  ফ্যাক্ট  আপনাদের জানিয়েদি আপনি ইন্টারনেটে যাই করেন হতে পারে ভিডিও দেখা বা গান শোনা বা কিছু ইনফরমেশন নেয়া বা অনলাইন গেমিং সেটা মনে রাখবেন কোনো না কোনো ওয়েবসাইটের একটি প্রোপাটি আপনি ব্যবহার করছেন এবং যেটা জীবিত আছে সার্ভারের মাধ্যমে। 


একটা ওয়েবসাইট মেইনটেইন করা আজকের দিনে কোনো সমস্যা নয় কিন্তু একটি ভালো মানের হোস্টিং খুঁজে সেটিতে ইনভেস্ট করার জন্য দরকার একটি ভালো মানের এক্সপিরিয়েন্স সেটা সবাই পারে না বা থাকে না। 


যদি আপনি ভাবছেন কত রকমের ওয়েবহোস্টিং মার্কেটে আছে তাহলে জানাবো  মার্কেটে অনেক ওয়েবহোস্টিং পাওয়া যায় যেগুলি বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়ে থেকে।

 

 



১.Hostinger [Cheap Sheard Hosting In Bangla]


যদি আপনি নতুন ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বা ব্লগ ইনস্টল বা লাঞ্চ করতে যাচ্ছেন তাহলে সেখানে চোখ বন্ধ করে হোস্টিংজারের সঙ্গে যেতে পারেন কারণ এদের শেয়ার্ড হোস্টিং প্যাকেজ সব থেকে কম রেটে পাওয়া যায় তুলনামূলক ভাবে অন্য সব হোস্টিং কোম্পানির থেকে যেখান আপনাকে কোনো স্পিড কম্প্রোমাইস করতে হয় না। 


যদি আপনি ভাবেন এদের আপটাইম তাহলে আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি কয়েকটি ব্লগ লাঞ্চ করার পর এদের ওয়েবহোস্টিংএ সার্ভিস বা আপটাইম অন্য কোম্পনি দিতে পারে না যেমন ৯৯.৯৫% আপটাইমএভারেজ লোডিং স্পিড ৩৫০ms .

 

 হোস্টিংজার সব রকমের হোস্টিং প্যাকেজ অফার করে থাকে কিন্তু যাদের মধ্যে সবথেকে অন্যতম শেয়ার্ড হোস্টিং প্যাকেজ যেটা অন্য কোম্পানি দিতে সক্ষম হবে না তাছাড়াও SSL সাটিফিকেট  বা ৩৬৫/৭/২৪ সাপোর্ট ও ৯৯.৯% আপটাইম গ্যারেন্টি আপনি পাবেন এদের প্যাকেজের সঙ্গে।



আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ। [১০০ GB]

ফ্রি SSL সার্টিফিকেট। 

ডেটাসেন্টার আমেরিকা, ইউরোপ, এশিয়া।

সুপারফাস্ট লোডিং টাইম।

ফ্রি ডোমেইন। [অফারে]

 

আরো পড়ুন : ৭টি গুরুত্বপূণ টুলস প্রত্যেক ইউটিউবার দের জন্য।




২.HostGator [বেস্ট ওয়ার্ডপ্রেস শেয়ার্ড হোস্টিং]


যদি আপনার প্ল্যান থাকে কোন কাস্টম মেড এফিলিয়াটে মার্কেটিং বা এডসেন্স ওয়েবসাইট বানানোর তাহলে আপনি HostGator শেয়ার্ড হোস্টিং প্যাকেজ নিতে পারেন।

 

তাদের আপটাইম বা ব্যান্ডউইথ বা ডিস্কস্পেস সবই আনলিমিটেড থাকে সঙ্গে আপনি আনলিমিটেড ইমেইল একাউন্ট বানাতে পারবেন যদি বলি তাদের এভারেজ আপটাইম ৯৯.৯০% এবং এভারেজ স্পিড ৩৯৯ ms যেটা মার্কেটে থাকা Bluehost কোম্পানিকে ভালো মানের টক্কর দিতে সক্ষম। 


তাছাড়াও,আপনি আরো ভালো মানের ফ্লেক্সসিবল অফার পেতে পারেন যেমন ফ্রি SSL সার্টিফিকেট, ফ্রি ডোমেইন ইয়ার্লি, রেডি মেড ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল সঙ্গে একটি ভালো বিল্টইন ক্যাশে প্লাগিন পাবেন যেটা আপনার সাইট বা ব্লগ লোডিং টাইম অনেকটাই বাড়াতে সাহায্য করে থাকে। 



ফ্রি ওয়েবসাইট বা ব্লগ ট্রান্সফার করতে পারবেন।

ব্যান্ডউইথ বা স্টোরেজ কোনো লিমিট নেই।

একটিও ফ্রি ডোমেইন। [অফার]

৪৫দিনের মানি ব্যাক গ্যারেন্টি।

অনেকগুলি ডাটা সেন্টার অপসন।

 

 

 

 ৩.SiteGround.

 

Siteground যদি না নামটা শুনে থাকে তাহলে বলি ওয়ার্ডপ্রেস এই কোম্পানিটিকে সব সময় রেকমেন্ড করে থাকেন যেখানে যারা এফিলিয়াটে মার্কেটিং বসেন তাদের জন্য এই হোস্টিংটি ডিজাইন করা হয়েছে। 

 

আপনি সাইটগ্রাউন্ডে সব কিছু লিমিটেড আকারে পাবেন আপনার বাজেটের মধ্যে কিন্তু যারা এফিলিয়াটে মার্কেটিং করতে ভালো বাসেন তাদের লক্ষ থাকে ভালো মানের স্পিড যেটা এই হোস্টিং কোম্পানি দিতে সক্ষম কিন্তু বেশিই ট্রাফিক লোড নিতে সক্ষম নন যদি আপনি কম বাজেটের কোনো প্ল্যান নেন এই কোম্পানি থেকে। 

 

সাইটগ্রাউন্ডে এখনো পর্যন্ত ২ মিলিয়ন ডোমেইন রেজিস্টার করা হয়েছে যাদের আপটাইম গ্যারেন্টি ৯৯.৯% এবং এভারেজ স্পিড ৬৩৭ ms বিভিন্ন উপমহাদেশ থেকে। 

 

তাছাড়াও, সাইটগ্রাউন্ড সব রকমের ফিচার অফার করেন কিন্তু বস্তুত তাদরে সাপোর্ট সিস্টেম অন্য সমস্ত কোম্পনীর থেকে আলাদা যেটা তাদের উনিক সঙ্গে ক্লাউন্ডফ্ল্যায়ের যুক্ত করতে পারবেন আপনার শীতের আরো ভালো স্পিড পাবার জন্য। 

 

আপনি ফ্রি SSL,লাইট স্পিড সার্ভার,SSD স্টোরেজ ইমেইল একাউন্ট, ওয়েবসাইট ট্রানফার এবং আরো একটি জিনিস সাইটগ্রাউন্ড ক্যাশে প্লাগিন পাবেন।

 

ব্লেজিয়ং লোডিং টাইম।

আপটাইম ৯৯.৯%.

সাপোর্ট সিটেম ২৪/৭.

ফাস্ট কাস্টমার সাপোর্ট। 

 

 


 ৪.NeamCheap.

 

নেমচিপ আপনারা যারা নতুন ব্লগ্গিং শুরু করেছেন তারা নিশ্চিত নামটা শুনবেন কারণ ব্লোগ্গিং করার জন্য অবশই যেটা দরকার একটি টপ লেভেল ডোমেইন যেটা নেমচিপ সেল করে থাকে। 

 

আপনি নেমচিপ নিয়ে অনেক রিভিউ পড়তে পারেন কিন্তু যেখানে সমস্ত রিভিউ পাবেন কিন্তু নেমচিপ একটি ভালো মানের ওয়ার্ডপ্রেস শেয়ার্ড হোস্টিং অফার করেন যেটা আপনার বাজেটের মধ্যে। 

 

এবার আশাযাক নেমচিপের হোস্টিংয়ের ফিচারের ব্যাপারে যদি আপনি নতুন ওয়ার্ডপ্রেস শুরু করতে যাচ্ছেন তাহলে নেমচিপ কিন্তু আপনার একটি ডেস্টিনেশন হতে পারে ভালো শেয়ার্ড হোস্টিং নেবার জন্য।

 

যদি আপনি মার্কেটে তুলনা করেন সব থেকে সস্তা হোস্টিং কোনটি তাহলে জানবো নেমচিপের স্থান হোস্টিংজারের পরেই সব থেকে সস্তা হোস্টিং সঙ্গে আপনাকে SSD ডিস্কস্পেস প্রোভাইড করেন। 


অনেক হোস্টিং আপনাকে সাহায্য করেন না যদি আপনি অন্য হোস্টিং থেকে আর একটি হোস্টিং যেতে চান কিন্তু নেমচিপ আপনাকে সাহায্য করবে সাইট সরানোর জন্য। 


সাপোর্ট ও সিপ্যানেলের [Cpanel] সমস্ত একসেস আপনাকে দিয়ে দেন আপনার ব্লগ বা সাইট মেনটেইন করার জন্য তাছাড়াও নেমচিপের SSL সার্টিফিকেট সব থেকে কঠিন ধরা হয়। 

  

 

৯৯.৯% আপটাইম গ্যারেন্টি। 

ফ্রি মাইগ্রেশনের সুবিধা।

SSD ডিস্ক স্পেস।

২৪/৭ সাপোর্ট।

 

 

 

 

 ৫.BlueHost .

 

ব্লুহস্ট সব থেকে পুরানো হোস্টিং গুলোর মধ্যে একটি যারা ২০০৯ থেকে মার্কেটে সমস্ত রকম হোস্টিং প্রোভাইড করে চলেছেন। 

 

যদি আপনি শুধু ওয়ার্ডপ্রেস সাইট বা ব্লগ চালাতে চান তাহলে ব্লুহোস্ট আপনার জন্য সব থেকে বেস্ট তাছাড়াও ব্লুহোস্ট তাদের বেসিক প্ল্যানে আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ ও ৫০GB স্টোরেজ অফার করে থাকেন।

 

আপনি যদি দেখেন তুলনামূলক ভাবে ব্লুহোস্ট সব থেকে সস্তায় ভালো মানের হোস্টিং সার্ভিস প্রভিডে করে থাকেন যেখানে ফ্রি SSL, ফ্রি ডোমেইন আপটাইম ৯৯.৯% ও আনলিমিটেড স্টোরেজ যুক্ত আছে।

 

শেয়ার্ড হোস্টিংয়ের পাশাপাশি আপনি সব রকমের হোস্টিং কিনতে পারেন ব্লুহস্ট থেকে যেমন ডেডিকেটেড হোস্টিং, ভিপিএস বা ম্যানেজ হোস্টিং সঙ্গে ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং ও ডোমেইন কিনতে পারেন।

 

 

সব থেকে ভালো মানের আপটাইম। [৯৯.৯%]

এভারেজ স্পিড। [৪০৫ ms]

ফ্রি ডোমেইন প্রত্যেকটি প্যাকের সঙ্গে। 

২৪/৭ কোয়ালিটি সাপোর্ট। 

৪৫ দিনের মানি ব্যাক গুরেন্টি।

 

মন্তব্য

  1. ভাই আপনি কি ভাবে ব্লগ লেখার পর Discripson দেন সেইটা একটু বলেন। সাথে একটা example দেন।

    আর Discripson কি keywords ব্যাবহার করেন? (Google recerch keyword). নাকি পোস্ট এর সামারি কিছু অংশ দিয়ে দেন?

    উত্তর দিনমুছুন

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

এই ব্লগটি থেকে জনপ্রিয় পোস্টগুলি

আলী এক্সপ্রেসে ড্রপ শিপিং বিজনেস গাইড: ইনকাম $1000 প্রত্যেক মাসে।

ড্রপ শিপিং বিজনেস গাইড সবাই আজ পয়সা ইনকাম করতে চাইছে ঘর থেকে কাজ করে,আপনি জানেন ঘরে বসে ইন্টারনেটে কাজ করে পয়সা উপার্জন এখন খুব কঠিন হয়েছে কারণ কম্পেটিশান ইন্টারনেটের প্রত্যেকটি জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে,তাই আজ আমার একটি নতুন বিষয় আপনাদের জানাতে চলেছি কিভাবে আলী এক্সপ্রেস ব্যবহার করে ড্রপ শিপিং বিজনেস মাধমে মাসে $1000 ইনকাম করবেন ঘরে বসে এছাড়াও আমরা আরো কিছু তথ্য জানবো কিভাবে আলী এক্সপ্রেস কাজ করে কতটা কার্যকরী পয়সা উপার্জনের জন্য। প্রথমে আমাদের জানতে হবে আলী এক্সপ্রেস কি , এবং কিভাবে এটা কাজ করে তার পর জানবো ড্রপ শিপিংর ব্যাপারে । আশা করবো এই গাইডটি অবশই আপনাদের সাহায্য করবে যারা নতুন ড্রপ শিপিং শুরু করতে চাইছেন এবং প্রত্যেকটি প্রসেস আপনাদের এক এক করে বলবো কিভাবে সপিফাই ব্যবহার করে একটি ড্রপ শিপিং স্টোর সেটআপ করবেন। #আলী এক্সপ্রেস ড্রপ শিপিং কি? চীনের সব থেকে বড়ো ইকমার্স  অনলাইন স্টোর যেটা আমাজানের মতোই যাদের লক্ষ প্রত্যেকটি ছোট বিসনেসকে ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত করা,আলী এক্সপ্রেসের পথ চলা শুরু করে ছিলো 2010 যেটা আলিবাবা গ্রুপেরি একটি অংশও পৃথিবীর প্রথম

2020 নতুন 16টি ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া।(YouTube nich idea in bangla)

2020 নতুন 16টি ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া বাংলা ইউটিউব চ্যানেল আপনি নতুন ইউটিবে ক্যরিয়ার গড়তে চাইছেন তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসে উপস্থিত হয়েছেন আপনার জন্য 2020 নতুন 16টি ইউটিবের চ্যানেলের আইডিয়া ।   হতে পারে আপনার একটি টপিকের প্রয়োজন যেটার উপরে আপনি কাজ করবেন, ও চ্যানেল আইডিয়া পেয়েচেন, তাহলে শুনুন সেটা আর কাজ করবে না, আর যদিও করে তাহলে প্রচুর সময় নেবে রেঙ্ক হতে, তাহলে কি করবেন আসুন নিচের কিছু নতুন ক্রিয়েটিভ চ্যানেল আইডিয়া বা ইউটিউব কন্টেন্ট আইডিয়া   আছে যেগুলি উপর  ইউটিউব ভিডিও তৈরি  করে দেকতে পারেন। এই চ্যানেল আইডিয়া গুলি খুঁজতে আমার 3সপ্তায় সময় লেগেছে এবং প্রত্যেকটি চ্যানেলের আইডিয়া সলিড ও ইউনিক এবং খুবই তাড়াতাড়ি ভিউ পাবার সম্ভবনা আছে। সবার আগে চেষ্টা করুন একটি নজর কাড়া চ্যানেল বানাতে তার পর ইনকাম আপনি দেকবেন যারা সফল ইউটিউবার তাদের ভিডিও খুব বেশি ভাইরাল হয়েযায় বা খুব লাইক, সাবস্ক্রাইবার আসে আলটিমেট প্রচুর ইনকামও করে যদি আপনি শুরুতেই এই রকমের কিছু আশা করেন তাহলে ওটা সম্ভব নয়,তাদের প্রচুর সময় ব্যায় করে তবেই ওই রকমের একটি চ্যানেল দাঁড় করাতে পরেছে। বড়ো মাপের

সহজে একটি সেরা আর্টিকেল লেখার নিয়ম।(কনটেন্ট রাইটিং টিপস)- Content Writing Tips In Bangla.

কনটেন্ট রাইটিং টিপস।