সরাসরি প্রধান সামগ্রীতে চলে যান

১০ সহজ উপায়ে ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধি করুন ? [ Tips To Grow Youtube Channel In Bangla ]


১০ সহজ উপায়ে ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধি করুন ? [ Tips To Grow Youtube Channel In Bangla ]
[Tips To Grow Youtube Channel In Bangla]

১০ সহজ উপায়ে ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধি করুন ? [ Tips To Grow Youtube Channel In Bangla ]:যারা নতুন ইউটিউব চ্যানেল খুলেছেন তারা অনেক সমস্যার সমুখীন হন এমনকি খুব খারাপ ভাবে স্ট্রাগেল করতে থাকেন ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধি করার জন্য। 


প্রধানত,এই সব সমস্যাগুলি বাস্তবে সম্মুখীন হন একটি নতুন ইউটিউব চ্যনেল খোলার পর তারা ভালো মানের ভিউ বা কমেন্ট বা শেয়ার এমনকি সাবস্ক্রাইবার জেনারেট করতে পারেন না। 


অনেকের আবার বিপরীত সমস্যার সামনা-সামনি আসেন যেমন বেশিই লাইক পাচ্ছেন ভিউ কম আসছে বা ভিউ বেশিই আসছে আবার সাবস্ক্রাইবার কম পরিমান আসছে ইত্যাদি। 


যদি আপনি ইউটিউবে ক্যারিয়ার শুরু করতে চান বা একটি পার্ট টাইম চ্যানেলে কাজ করতে চান তাহলেও একই সমস্ত গুনাগুন দরকার একটি চ্যানেল বৃদ্ধি করার জন্য। 


এই সমস্ত সমস্যার সমাধান গোড়া থেকে দেবার জন্য আজ আমার এই প্রতিবেদনটি যেখানে কিভাবে একটি চ্যানেলের ব্র্যান্ডিং থেকে শুরু করে সফল ভাবে ইউটিউব চ্যানেল চালাবেন তার পদ্ধতি গুলি আমি আপনাদের জানবো। 




কিছু বিষয় বস্তু মনে রাখবেন ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধির টিপস গুলি এপলাই করার আগে।[Grow Youtube Channel In Bangla]


নিচের সমস্ত প্রসেস গুলি বিশেষ-শত অপ্টিমাইজ করা একটি নতুন চ্যানেলকে নজরে রেখে এবং যারা স্ট্রাগেল করছেন তাদের ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধি [Youtube Channel Grow] করণের জন্য তাদের জন্য আমার এই টিপস মূলতঃ। 


সমস্ত টিপস বা উপায় আমি সারি-বদ্ধ আকারে আমি স্ট্রাকচার করেছি যদি একটিও মিস করেন তাহলে সম্পূর্ণ প্রসেসটি নাও কার্য কর হতে পারে। 


তাছাড়াও, আপনি যদি এখানে সহজে ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধি করণের উপায় সমূহ খুঁজছেন তাহলে আমি দুঃখিত নিচের দেওয়া টিপস বা ফর্মুলা গুলি কোনো কুইকলি চেঞ্জিং টিপস না এগুলি কায্য-কর হতে কখনো সময় লাগে। 





১.নতুন চ্যানেলের ক্ষেত্রে একটি স্ট্রিক্ট রুল বরাবর এগিয়ে চলুন। [ Tips To Grow Youtube Channel In Bangla ]


প্রথমেই একটি চ্যানেল শুরু আগে আমি যেই কথাটি বলেনি সবাইকে যারা আমাকে আগেও জিজ্ঞাসা করেছেন কিভাবে একটি চ্যানেলকে সফলতার সঙ্গে বৃদ্ধি করা যায়। 


যেটা আপনি করতে পারবেন না লাইক বা ভিউ বা সাবস্ক্রাইবার বা শেয়ার স্বয়ংক্রিয় ভাবে বাড়াতে পারবেনা কিন্তু আপনি একটি রুল বা নিয়ম করে ভিডিও তৈরি করে আপলোড দিতে পারবেন এটা আপনার সক্ষমতার মধ্যে পরে তাই এটাই করতে থাকুন। 


যদি আপনার চ্যানেলে পর্যাপ্ত পরিমানে কনটেন্ট না থাকে তাহলে একজন ইউসার কিভাবে আপনার একটি ভিডিও দেখার পর অন্য একটি ভিডিওতে যাবেন এটার জন্য একটি বাফার জোন তৈরি করুন তার পর আপনি লাই,ভিউ,শেয়ার ইত্যাদির পেছনে ছুটতে পারেন। 


একটি নিয়ম বানিয়ে নিন আপনি কটা ভিডিও বানাবেন কতটা শুট করতে পারবেন এবং এটা বরাবর এগিয়ে চলুন একজন ইউটিউব ভিডিও লাভার হিসাবে বলছি আমি তাদের বেশিই প্রাধান্য দিয়ে থাকি যারা কনসিস্টন্টে ভিডিও বানিয়ে চলেন লাইক,ভিউ শেয়ার ইত্যাদির আশা বাদ দিয়ে। 




২.একটি ব্র্যান্ড তৈরি করার কথা ভাবুন। 


যদি আপনি একজন সফল ইউটিউবার হতে চান এবং সফল ভাবে উন্নতি করতে চান এই ফিল্ডে তাহলে আপনাকে আপনার চ্যানেলটি এমন ভাবে ট্রিট করতে হবে যাতে দর্শকদের মনে দাগ কেটে যায় এভাবেই একটু একটু করে আপনি বৃদ্ধি করতে সক্ষম হবেন। 


ইউটিউবে একটি ব্রেন্ডের একাউন্ট তৈরি করুন  যখনি আপনি ব্রেন্ডের একাউন্ট তৈরি করবেন তখন আপনি আপনার চ্যানেলের ভালো মানের এনালিটিক্স বৃদ্ধি অনুভব করবেন যেটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 


অবশ্যই চেষ্টা করুন আপনার সোশ্যাল মিডিয়া কন্টাক্ট ইনফরমেশন শেয়ার করুন আপনার ভিডিওর সঙ্গে যাতে তারা আপনার সঙ্গে যোগা-যোগ করতে পারেন অন্য সব মিডিয়াতে। 


আপনার উচিত প্রত্যেক ভিডিওর শেষ অথবা শুরুতেই একটি ভালো ধরণের ইন্ট্রো লাগনো এত চ্যানেলের অথিরিটি বাড়ার সম্বভনা খুবই থাকে। 


আপনার চ্যানেলের অবশ্যই প্রয়োজন একটি লোগো একটি চ্যানেল আইকন যেটা সহজেই ইউসারকে বুজতে সাহায্য করবে। 




৩.অডিয়েন্সের জন্য কনটেন্ট বানান,আপনার জন্য না। 


যদি আপনি ভিডিও বানিয়ে মজা পাচ্ছেন তাহলে আমি নিশ্চিত আপনি সেটা আপনার অডিয়েন্সের জন্য বানাচ্ছেন কিন্তু আপনি আপনার ভিডিও দেখে মজা পাচ্ছেন তাহলে আমি নিশ্চিত সেটা আপনি আপনার জন্য বানাচ্ছেন। 


যদি আপনি একজন সফল ইউটিউবার হতে চান সঙ্গে আপনার চ্যানেল সফলতার সঙ্গে উন্নতি করতে চান তাহলে আপনার উচিত আপনার টার্গেট অডিয়েন্সের জন্য ভিডিও বানানো আপনার জন্য না। 


অবশ্যই, এটা করার জন্য অনেক সময় প্রয়োজন তবুও এটা মূলবান একবার অনন্ত আপনার টার্গেট অডিয়েন্সকে জানা প্রথমে আপনি অবশ্যই ভুল করবেন যখন আপনি জানতে সক্ষম হবেন আপনার অডিয়েন্স কি ভিডিও দেখতে পছন্দ করেন তখন আপনার বৃদ্ধি দশ গুণ গতিতে করতে পারবেন।  


আরো পড়ুন : নিশ কি ? :What Is Niche In Bangla.




৪. দেখুন মানুষ কি খুঁজছে বা দেখতে চাইছে ?


মানুষ কি খুঁজছে বা দেখতে চাইছে এটা জানার জন্য দরকার সঠিক কিছু কৌশল প্রয়োগ করা যেমন কীওয়ার্ড রিসার্চ করা বা আগে থেকেই যেটা মানুষ দেখছেন সেই রকমের ট্রেন্ড ফলো করা। 


এটা করতে পারেন আপনি দুটি উপায়ে প্রথমটি ম্যানুয়ালি ইউটিউবের সার্চ বারে টাইপ করে দেখতে পারেন আপনি যেই নিস্ বা বিষয় নিয়ে ভিডিও তৈরি করছেন, এই নিসের মধ্যে কোন রকমের ভিডিও বেশিই দেখার সম্বভনা আছে সেই রকমের ভিডিও বানাতে পারেন। 


দৃতীয় উপায়টি হচ্ছে আপনি কীওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারেন তাই আমি এই কনটেন্টটি বানিয়েচি আপনি পরে দেখতে পারেন কিভাবে ইউটিউবের কীওয়ার্ড রিসার্চ করতে হয়। 


আরো পড়ুন : ইমেইল মার্কেটিং [Email Marketing] করার ৫টি টিপস।




৫.সঠিক ভিডিওর এসইও [SEO] করা। 


এখানের সব গুলি পয়েন্টের থেকে একটি ভাইটাল পয়েন্ট বলতে পারেন যেটা আপনাকে এবং আপনার চ্যানেলকে ভালো মানের বুস্ট দিতে পারে অর্গানিক ভিউ পাবার জন্য সার্চ ইঞ্জিন থেকে।  


যেখানে আপনাকে খুব ছোটো বিষয় যেমন সঠিক জায়গায় টাইটেলে বা মেটাডেস্ক্রিপশন দেওয়া বা ট্যাগের ব্যবহার ইত্যাদি। 


আরো পড়ুন : ইউটিউব এসইও [SEO] কি ? ইউটিউব ভিডিওতে এসইও [SEO] কিভাবে করবেন বিস্তারিতঃ




৬.দৃঢ়বদ্ধ [Consistent] ভাবে কাজ করুন। 


এককথায় দৃঢ়বদ্ধ বা [Consistent] হচ্ছে একটি উপায় ইউটিউব চ্যানেল বৃদ্ধি করণের যেখানে আপনি আপনার দর্শকদের প্রয়োজন মেটান পরিবর্তে তারা আপনাকে অনুপ্রেরণা দেন আরো ভালো মানের ভিডিও তৈরি করার জন্য। 


অনেকেই আছেন যারা সাপ্তাহিক বা মাসিক নিয়ম ফলো করেন ইউটিউযে ভিডিও দেবার সময়, এটা সম্পূর্ণ আপনার উপর নির্ভর করছে কোনটি আপনার জন্য সব থেকে ভালো হবে ভিডিও দেবার টাইম টেবিল। 


সব থেকে ক্ষতি হয় যখন আপনি ডেমোটিভেট হয়ে ভিডিও বানানো বন্ধ করে দেন এবং সেই টাইম পিরিওড এর মধ্যে আপনার সাবস্ক্রাইবার কমতে শুরু করে। 



৭.সঠিক ভাবে ভিডিও থাম্বনেইল বানান। 

ইউটিউবের কথা অনুযায়ী ৯০% ভিডিও সব থেকে বেশি ভিউ আনেন সঠিক ভিডিও থাম্বনেইল বানিয়ে যেখানে আপনি এই কাজ টিকে ভুল ভাবে করে থাকেন। 


যদি আপনি একটি সফল চ্যানেল বৃদ্ধি করতে চান তাহলে আপনাকে এই টার্মসটি নিশ্চিত ভাবে দক্ষ হতে হবে যেটার উপর নির্ভর করে আপনার চ্যানেল ভালো ভাবে বৃদ্ধি হতে পারে। 


একটি ভালো মানের থাম্বনেল কিন্তু আপনাকে সাহায্য করতে পারে আপনার ভিডিও গুলিকে সাজেশোন লিস্টে আন্তে এবং যেটাকেই ধরা হয় সব থেকে বেশিই ট্রাফিক জেনারেট করার একটি উপায়। 



থাম্বনেইল টিকে যতটা সম্ভব সাধারণ এবং পরিস্কার রাখুন। 

Ⓞ থাম্বনেইল টিতে ভালো মানের রঙ দিয়ে বানান। 

Ⓞ যদি আপনি থাম্বনেইলের মধ্যে টেক্সট ব্যবহার করেন এগুলির সঠিক আকার বা রঙ ব্যবহার করুন 

Ⓞ আপনার থাম্বনেইলটি মোবাইল ইউসার দের মাথায় রেখে বানান। 

Ⓞ চেষ্টা করুন যেটা প্রমিস করে চেন সেটা কে ডেলিভার করার। 

জানেন না কিভাবে থাম্বনেইল বানাবেন বা কোন রকমের থাম্বনেইল আপনার চ্যনেলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ তাহলে এই পোস্টটি পড়ুন। 




৮.সিরিজ [SERIES] আকারে ভিডিও বানান। 


আপনি নিশ্চিত ভাবে জানেন একজন ওয়ান টাইম ভিউয়ারকে সাবস্ক্রাইবারে পতিবর্তন করা কতটা কষ্ট কর কিন্তু এটাও করা সম্ভব যদি আপনি সঠিক কৌশল জানেন। 


সিরিজ আকারে ভিডিও বানানো যেসমস্ত বেনিফিট গুলি আপনি পাবেন আপনি ওয়াচটাইম বাড়াতে পারবেন সঙ্গে সেসন টাইম বাড়াতে পারবেন। 


একটি বড়ো আকারের ভিউয়ারকে হুক করতে পারবেন যদি আপনি সিরিজ বানান শুরু করেন কারণ তারা আপনার যদি প্রথম পার্ট দেখেন তাহলে নিশ্চিত দিতীয় পার্টের জন্য আপনার চ্যনেলে আসবেন। 


এমন কিছু ভিডিও সিরিজ বানানোর চেষ্টা করুন যেখানে মানুষ আপনার ট্র্যাপে আবদ্ধ হতে থাকে এবং অবশেষ সাবস্ক্রাইব করতে বাধ্য হন। 




৯.কমেন্টের রেস্পন্ড করুন। 


অনেক সময় সমস্ত কিছু উপায় দেখতে গিয়ে এই বিষয়টি ভিড়ের মধ্যে হারিয়ে যায় কমেন্টে রেস্পন্ড করা,কিন্তু আপনি জানলে আশ্চর্য হবেনঃ একজন সফল ইউটিউবার হবার জন্য আপনাকে সরাসরি আপনার ইউসারএর সঙ্গে কমেন্টে রেস্পন্ড করা উচিত। 


যখনি আপনি আপনার অডিয়েন্সের সঙ্গে এনগেজ করা শুরু করবেন কমেন্টের মধ্যে বা কমেন্টের মধ্যে রেস্পন্ডে করবেন তারাও অনুভব করতে শুরু করবেন আপনার সাথে একটি কানেকশন বিল্ড হতে শুরু করেছে। 


কমেন্টে রেস্পন্ড অনেক মাত্রায় আপনার ভিডিও শেয়ার বা ভিডিও লাইক এবং আলটিমেট আপনার একজন সৎ সাবস্ক্রাইবার বানিয়ে তুলতে পারে একজন রেন্ডম ইউসারকে। 


তাছাড়াও, কমেন্টে রেস্পন্ড কিন্তু নতুন নতুন আইডিয়া ক্রিয়েট হয় যেমন আপনি কী বিষয়ে ভিডিও বানাবেন কোনো ধারণা পাচ্ছেননা তখন আপনি তাদের জিজ্ঞাসা করতে পারেন তাদের কোন বিষয়ে ভিডিও পেতে আগ্রহী। 




১০.পরিচিতো ইউটিউবার দের সঙ্গে কাজ করুন।  


একটি নতুন ইউটিউবার হয়ে আপনার চ্যানেলকে প্রারম্ভিক বুস্ট দেওয়াটা কতটা কষ্ট কর সেটা সবাই জানে,কিন্তু যদি আপনার সঠিক পদ্ধতি বা কৌশল জানা থাকে তাহলে সেটা করা সম্ভব যেটা ডেইলি ভিডিও শেয়াররের থেকেও বেশিই এফেকক্টিভে আমি বলছি না আপনার ভিডিও ডেইলি শেয়ার করবেন না। 


 যেসব পরিচিতো ইউটিউবার আছেন তারা আগে থেকেই তাদের সঙ্গে জয়েন্টলি কাজ শুরু করুন প্রথমে তারা আপনাকে ইগনোর করতে পারে কিন্তু আপনি তাদের সঙ্গে যদি এনগেজ হতে শুরু করেন কৌশলের মাধ্যমে আপনার জয়েন্টলি কাজ করার ব্যাপারটি পিচ করেন তাহলে তারা নিশ্চিত আপনার সঙ্গে কাজ করবেন। 


আপনি যখন পরিচিতো ইউটিউবার দের সঙ্গে কাজ শুরু করবেন এটা যেমন একটি সোশ্যাল প্রুফ তেমনি যারা আপনার ব্যাপারে জানতেন না আপনি একজন নতুন ইউটিউবার তারাও জেনে যাবেন। 


মন্তব্য

এই ব্লগটি থেকে জনপ্রিয় পোস্টগুলি

আলী এক্সপ্রেসে ড্রপ শিপিং বিজনেস গাইড: ইনকাম $1000 প্রত্যেক মাসে।

ড্রপ শিপিং বিজনেস গাইড সবাই আজ পয়সা ইনকাম করতে চাইছে ঘর থেকে কাজ করে,আপনি জানেন ঘরে বসে ইন্টারনেটে কাজ করে পয়সা উপার্জন এখন খুব কঠিন হয়েছে কারণ কম্পেটিশান ইন্টারনেটের প্রত্যেকটি জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে,তাই আজ আমার একটি নতুন বিষয় আপনাদের জানাতে চলেছি কিভাবে আলী এক্সপ্রেস ব্যবহার করে ড্রপ শিপিং বিজনেস মাধমে মাসে $1000 ইনকাম করবেন ঘরে বসে এছাড়াও আমরা আরো কিছু তথ্য জানবো কিভাবে আলী এক্সপ্রেস কাজ করে কতটা কার্যকরী পয়সা উপার্জনের জন্য। প্রথমে আমাদের জানতে হবে আলী এক্সপ্রেস কি , এবং কিভাবে এটা কাজ করে তার পর জানবো ড্রপ শিপিংর ব্যাপারে । আশা করবো এই গাইডটি অবশই আপনাদের সাহায্য করবে যারা নতুন ড্রপ শিপিং শুরু করতে চাইছেন এবং প্রত্যেকটি প্রসেস আপনাদের এক এক করে বলবো কিভাবে সপিফাই ব্যবহার করে একটি ড্রপ শিপিং স্টোর সেটআপ করবেন। #আলী এক্সপ্রেস ড্রপ শিপিং কি? চীনের সব থেকে বড়ো ইকমার্স  অনলাইন স্টোর যেটা আমাজানের মতোই যাদের লক্ষ প্রত্যেকটি ছোট বিসনেসকে ইন্টারনেটের সঙ্গে যুক্ত করা,আলী এক্সপ্রেসের পথ চলা শুরু করে ছিলো 2010 যেটা আলিবাবা গ্রুপেরি একটি অংশও পৃথিবীর প্রথম

2020 নতুন 16টি ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া।(YouTube nich idea in bangla)

2020 নতুন 16টি ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া বাংলা ইউটিউব চ্যানেল আপনি নতুন ইউটিবে ক্যরিয়ার গড়তে চাইছেন তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসে উপস্থিত হয়েছেন আপনার জন্য 2020 নতুন 16টি ইউটিবের চ্যানেলের আইডিয়া ।   হতে পারে আপনার একটি টপিকের প্রয়োজন যেটার উপরে আপনি কাজ করবেন, ও চ্যানেল আইডিয়া পেয়েচেন, তাহলে শুনুন সেটা আর কাজ করবে না, আর যদিও করে তাহলে প্রচুর সময় নেবে রেঙ্ক হতে, তাহলে কি করবেন আসুন নিচের কিছু নতুন ক্রিয়েটিভ চ্যানেল আইডিয়া বা ইউটিউব কন্টেন্ট আইডিয়া   আছে যেগুলি উপর  ইউটিউব ভিডিও তৈরি  করে দেকতে পারেন। এই চ্যানেল আইডিয়া গুলি খুঁজতে আমার 3সপ্তায় সময় লেগেছে এবং প্রত্যেকটি চ্যানেলের আইডিয়া সলিড ও ইউনিক এবং খুবই তাড়াতাড়ি ভিউ পাবার সম্ভবনা আছে। সবার আগে চেষ্টা করুন একটি নজর কাড়া চ্যানেল বানাতে তার পর ইনকাম আপনি দেকবেন যারা সফল ইউটিউবার তাদের ভিডিও খুব বেশি ভাইরাল হয়েযায় বা খুব লাইক, সাবস্ক্রাইবার আসে আলটিমেট প্রচুর ইনকামও করে যদি আপনি শুরুতেই এই রকমের কিছু আশা করেন তাহলে ওটা সম্ভব নয়,তাদের প্রচুর সময় ব্যায় করে তবেই ওই রকমের একটি চ্যানেল দাঁড় করাতে পরেছে। বড়ো মাপের

সহজে একটি সেরা আর্টিকেল লেখার নিয়ম।(কনটেন্ট রাইটিং টিপস)- Content Writing Tips In Bangla.

কনটেন্ট রাইটিং টিপস।